Share

বন্যা পরিস্থিতিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ায় পাকিস্তান আরও আন্তর্জাতিক সহায়তার জন্য আবেদন করেছে। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় বন্যায় ১১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে মোট মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৩৩ এ পৌঁছেছে। রোববার বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

পাকিস্তানি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় তাদের আরও তহবিল প্রয়োজন। এ জন্য তারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও অন্যান্য দেশগুলোর কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা সালমান সুফি জানিয়েছেন, তার দেশের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানকে অর্থনৈতিক সমস্যা মোকাবিলা করতে হচ্ছে, কিন্তু যখন আমরা এগুলো কাটিয়ে উঠতে যাচ্ছিলাম তখন মৌসুমী বিপর্যয় আঘাত হেনেছে।’

তিনি জানান, অনেক উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য অর্থ বরাদ্দ স্থগিত রেখে তা ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমে, খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশে নদীগুলোর বাঁধ ভেঙে গেছে। এর ফলে শক্তিশালী আকস্মিক বন্যায় হাজার হাজার মানুষ তাদের বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে ২৩ বছর বয়সী জুনায়েদ খান বলেছেন, ‘আমরা বছরের পর বছর কঠোর পরিশ্রমে যে বাড়িটি তৈরি করেছিলাম তা আমাদের চোখের সামনে ডুবে গেছে। আমরা রাস্তার পাশে বসে আমাদের স্বপ্নের বাড়িটি ডুবতে দেখলাম।’

পাকিস্তানের দক্ষিণ-পূর্বের সিন্ধু প্রদেশও বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে। এই অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ তাদের বাড়িঘর ছেড়ে আসতে বাধ্য হয়েছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *