18 May 2024

মঙ্গলবার, ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

স্ত্রী-সন্তান হারানো আলজাজিরার সেই সাংবাদিক গুরুতর আহত

Share

ফটোনিউজবিডি ডেস্ক::

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার সাংবাদিক ওয়ায়েল আল-দাহদুর ইসরায়েলি বাহিনীর ছোড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছেন। সংবাদ সংগ্রহের দায়িত্বে থাকা আলজাজিরা অ্যারাবিকের এ সাংবাদিকের সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আহত হয়েছেন তার ক্যামেরাম্যান সামির আবুদাকা।

গত ২৫ অক্টোবর গাজার দক্ষিণাঞ্চলের নুসিরাত শরণার্থী ক্যাম্পে দখলদার ইসরায়েলের বোমা হামলায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ওয়ায়েল আল-দাহদুরের স্ত্রী, দুই সন্তান ও তার নাতনী। এবার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আহত হয়েছেন তিনি নিজেও।

আলজাজিরা জানিয়েছে, শুক্রবার (১৫ ডিসেম্বর) খান ইউনিসে জাতিসংঘের ফারহান স্কুলে সংবাদ সংগ্রহ করছিলেন এ দুজন। তখনই হামলার মুখে পড়েন তারা।

ওয়ায়েল আল-দাহদুরের ডান হাতে শ্রাপনাল আঘাত হেনেছে। তার ক্যামেরাম্যান আবুদাকা এখনো ধ্বংসস্তূপে আটকে আছেন। আবুদাকার অবস্থা বেশি গুরুতর।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, ওই এলাকায় প্রচণ্ড গোলা ছুড়ছিল ইসরায়েলি বাহিনী।

গত ৭ অক্টোবর হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে যুদ্ধ শুরুর পর ইসরায়েলিদের হামলায় এখন পর্যন্ত প্রায় ১০০ সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও কয়েকশ সাংবাদিক।

অভিযোগ রয়েছে, সাংবাদিকদের লক্ষ্য করে ইচ্ছেকৃতভাবে হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি বাহিনী। যেন তাদের বর্বরতার খবর বহির্বিশ্বে যেতে না পারে।

যুদ্ধের শুরু থেকেই ওয়ায়েল আল-দাহদুর গাজার সাধারণ মানুষের দুঃখ-দুর্দশা তুলে ধরছিলেন। তার পরিবার থাকত গাজার উত্তরাঞ্চলে। যুদ্ধ বাধার পর যখন ইসরায়েলি বাহিনী উত্তরাঞ্চল থেকে সাধারণ মানুষকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়; তখন নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে নিজ পরিবারের সদস্যদের দক্ষিণাঞ্চলের নুসিরাত ক্যাম্পে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন আলজাজিরার এ সাংবাদিক। কিন্তু সেখানেই ইসরায়েলিদের বর্বর হামলায় পরিবারকে হারান তারা।

সূত্র: আলজাজিরা