18 May 2024

মঙ্গলবার, ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

টাকার তুলনা দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে গাভাস্কারের খোঁচা

Share

ফটোনিউজবিডি ডেস্ক:

বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেট বোর্ড হিসেবে আগে থেকেই খ্যাতি আছে ভারতের। সাম্প্রতিক সময় সেই আধিপত্য আরও অনেকটা বেড়েছে। এছাড়া আইসিসির বন্টননীতিতেও বড় আকারের লাভের মুখ দেখছে বিসিসিআই। এবার সেই টাকার কথা তুলেই কিনা দক্ষিণ আফ্রিকাকে খোঁচা দিয়ে বসলেন ভারতের ক্রিকেট কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কার।

মূল ঘটনার শুরু ডারবানে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ থেকে। বিশ্বকাপের আগে দুই দলের সামনে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আছে মোটে ৬টি। এরই একটি ম্যাচ গতকাল ডারবানে পণ্ড হয় বৃষ্টির তাণ্ডবে। বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে বাধার পাশাপাশি এদিন হতাশ হতে হয়েছে মাঠে আসা দর্শকদের।

এই ম্যাচ ঘিরে ডারবানে ছিল ভারতীয় বংশোদ্ভুত আর প্রবাসীদের ব্যাপক ভীড়। এক মাস আগেই এই ম্যাচের সব টিকিট বিক্রি হয়েছে। যদিও বেরসিক বৃষ্টিতে ভেসেছে সবই। দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রচুর ভারতীয় প্রবাসী থাকেন। তাদের কষ্টও নজরে এসেছে ভারতের সাবেক এই ক্রিকেটারের। আর সবকিছুর জন্য সানি দোষ চাপিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার উপরেই।

তার মতে, বৃষ্টির সময় যথাযথ ব্যবস্থা নিলে খেলা হয়তো চালানো যেত। সেসময়ই সিএসএকে খোঁচা দিয়ে গাভাস্কার বললেন, ওদের হয়তো বিসিসিআইয়ের মতো অত টাকা নেই।

বৃষ্টি বাগড়ায় ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার প্রস্তুতিতে বাধা
ভারতের বিপক্ষে নামার আগে প্রোটিয়া শিবিরে চোটের হানা
বাদ পড়লেন বাভুমা, ভারতের বিপক্ষে নেতৃত্বে মার্করাম
গাভাস্কারের বিশ্বাস, বৃষ্টির সময় পুরো মাঠ কাভার দিয়ে ঢাকা থাকলে খেলা চালানোর একটা সম্ভাবনা থাকতো। ব্রডকাস্টিং পার্টনার স্টার স্পোর্টসে ধারাভাষ্যে তিনি বলেন, ‘মাঠ যদি এভাবে ঢাকা না থাকে, বৃষ্টি বন্ধ হলেও পরের এক ঘণ্টায় ম্যাচ শুরু করা যাবে না। হঠাৎ করে আবার বৃষ্টি শুরু হলো। খেলাও আর হলো না। সব ক্রিকেট বোর্ডই তো প্রচুর টাকা পায়। যদি বলে পায় না, তাহলে মিথ্যা বলা হবে। ওদের হয়তো বিসিসিআইয়ের মতো টাকা নেই। কিন্তু সব বোর্ডই পুরো মাঠ ঢাকতে কাভার কেনার জন্য টাকা পায়।’

রোববার বাংলাদেশ সময় সময় রাত ৭টা ৩০ মিনিটের সময় টস হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বৃষ্টির কারণে তা সম্ভব হয়নি। পুরো সময় পিচ কভার খুলতে পারেনি মাঠকর্মীরা। এমনকি নিয়ম মেনে ৬ ওভারের ম্যাচ আয়োজনের চেষ্টাও করা হয়েছিল। কিন্তু, সেটাও হয়নি।

সিরিজের প্রথম ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ায় হতাশ দুই দলই। আগামী বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নতুন এক দল সাজানর চেষ্টায় আছে ভারত। সূর্যকুমার যাদবকে অধিনায়ক করে সেই দলের অনেককে পরখ করতে চেয়েছিল তারা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলেও, সেটা ছিল ঘরের মাঠে। স্কোয়াড পরীক্ষার বড় উপলক্ষ্য এই সিরিজ।