Share

ফটোনিউজবিডি ডেস্ক:

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) উড়ছে সিলেট স্ট্রাইকার্স। টানা তিন ম‌্যাচে তিন জয় তুলে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল চমকে দিয়েছে সবাইকে। চমক দেওয়া সেই দল নজরে পড়লো জুয়ারিদের। দলের মালিকদের একজনকে দেওয়া হলো ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব।

শুধু সিলেট স্ট্রাইকার্সকেই নয়, একাধিক দলের কর্মকর্তাদের কাছেও গেছে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব। যা নিয়ে খুব বেশি উদ্বিগ্ন নয় বিসিবি। কারণ তাদের দুর্নীতিবিরোধী ইউনিট (এসিইউ) ফিক্সিং ঠেকাতে কাজ করছে নিবিড়ভাবে।

সিলেটকে দেওয়া প্রস্তাবও তেমনই বিচ্ছিন্ন ঘটনা। ফ্র্যাঞ্চাইজির পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে এরই মধ‌্যে বিসিবিকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে। বিসিবির এসিইউ কাজ করছে। বিসিবির পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস‌্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেছেন, ‘আসলে এটা আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু হয়নি। সিলেট স্ট্রাইকার্স মৌখিকভাবে আমাদের অ্যান্টি করাপশন ইউনিটকে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার বিষয়টি জানিয়েছে। এটা রিপোর্টেড কিছু নয়। প্রতি দুই-তিন খেলা পরপর দুই-একটা করে আমরা রিপোর্ট পাই। ওগুলো সিরিয়াস কিছু নয়।’

‘এমন রিপোর্ট পেলে অ্যান্টি করাপশন তখন নজরদারি বাড়ায়। সত্যিকার অর্থেই প্রস্তাব এলে তখন অ্যান্টি করাপশন ইউনিট নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি এটা নিয়ে তদন্ত করে। তো এখানে এমন কিছু হয়নি। আর এটা যদি ক্লাসিফাইড ইনফরমেশন হয়, পুরো তদন্ত শেষ না করে অ্যান্টি করাপশন আমাদের কিছু বলবে না।’- যোগ করেন তিনি।