Share

ফটোনিউজবিডি ডেস্ক:

চলতি বছরে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন বাংলাদেশি নাগরিক হজ পালন করতে পারবেন। হজ করতে পারবেন ৬৫ বছরের বেশি বয়সীরাও।

এবার রুট টু মক্কা ইনিশিয়েটিভের আওতায় শতভাগ হজযাত্রীর ইমিগ্রেশন বাংলাদেশেই হবে। হজযাত্রীদের অবশ্যই করোনার টিকা নিতে হবে। ৭০ শতাংশ বাংলাদেশি জেদ্দা হয়ে এবং ৩০ শতাংশ মদিনা হয়ে মক্কায় আসা-যাওয়া করবেন।

এসব বিষয়ে সোমবার (৯ জানুয়ারি) সকালে সৌদি আরবের সঙ্গে হজ চুক্তি করেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের পক্ষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এবং সৌদি আরবের পক্ষে দেশটির হজ ও ওমরাহবিষয়ক মন্ত্রী ড. তৌফিক আল-রাবিয়াহ হজ চুক্তিতে সই করেছেন।

ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, আজ সকাল ১০টার দিকে সৌদি আরবের সঙ্গে হজ চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী, এবার সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৫ হাজার জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ১২ হাজার ১৯৮ জন হজে যেতে পারবেন। হজ টিমের (প্রশাসনিক ও মেডিক্যাল) সদস্য হিসেবে সৌদি আরবে যেতে পারবেন ১ হাজার ২৭০ জন।

বাড়িভাড়াসহ অন্যান্য কার্যক্রম ই-হজ ব্যবস্থাপনার আওতায় অনলাইনে বলে বলেও জানান আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীন।

হজ চুক্তি সই ছাড়াও সৌদি আরবের হজ ও ওমরা কনফারেন্স এবং এক্সিবিশনে অংশ নিতে গত ৭ জানুয়ারি সৌদি আরবে যান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল।

প্রতিনিধিদলে আছেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মতিউল ইসলাম ও হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম।