05 March 2024

মঙ্গলবার, ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রে সিলেটি কমিউনিটিদের মিলনমেলা

Share


স্টাফ রিপোর্টার:
কনকনে শীত। আর এই শীতকে কেন্দ্র করে আনন্দকে ভাগাভাগি করতে কার না ভালো লাগে? সবাই চায় এই সময়কে অন্য সময়ের চেয়ে একটু ভিন্ন ভাবে কাটাতে। আর প্রকৃতির এই রুপকে আপন করে নিতে কত না উদ্যোগ থাকে মানুষের। তেমনি একটি মিলনমেলার আয়োজন করল সিলেটি কমিউনিটি। যেখানে প্রত্যেকেই তাদের ফ্যামেলী নিয়ে মিলনমেলায় অংশগ্রহণ করে। যা প্রতি বছরই আয়োজন করা হয় কমিউনিটির মধ্য থেকে।

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সিলেটি কমিউনিটিদের ফ্যামেলী নিয়ে মিলনমেলার আয়োজন করা হয়। মিলনমেলায় ওয়াশিংটন ডিসি, ম্যারিল্যান্ড ও ভার্জিনিয়া শহরের সিলেটি কমিউনিটি ফ্যামেলি অংশগ্রহণ করে। যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী সিলেটি কমিউনিটিদের আধিপত্য ব্যাপক। এই কমিউনিটির অনেকেই আইটি পেশার সাথে জড়িত। তাদের কয়েকজন আবার সফল ব্যবসায়ী। যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ধরণের আইটি কোম্পানিসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। আর এই ব্যবসায়ীদের মধ্যে অন্যতম কয়েকজন ২০২২ সালের মিলন মেলায় অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্যে ফেয়ার ওয়ে মর্গেইজ এর দিলাল আহমদ, হোম হেলথ কেয়ারের শরীফ আহমদ। তার কোম্পানি যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত সিনিয়র সিটিজেনদের বয়স্ক ভাতা পেতে সহযোগীতা করে থাকে। ন্যাশনাল রিয়েল্টর এর সৈয়দ মোর্শেদ আহমদ বাংলাদেশী কমিউনিটিদের বাড়ি কিনতে সহযোগীতা করে থাকেন। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে শতভাগ সফলতা অর্জনকারী প্রতিষ্ঠান হলো মোস্তাফিজুর চৌধুরী তানভীরের বিডিআইটি ডোমেইন। এই প্রতিষ্ঠানটি আইটি ট্রেনিংসহ বিভিন্ন ধরণের সোস্যাল ওয়ার্ক করে থাকে। বিডিআইটি ডোমেইনকে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী কমিউনিটিদের মধ্যে অন্যতম প্রভাবশালী কোম্পানি হিসেবে গণনা করা হয়। এছাড়াও আরও একজন সফল ব্যবসায়ী আবু তারেক ছিলেন এই মিলনমেলায়।


পিকনিকের শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত ও গীতা থেকে শ্লোক শুনানো হয়। পিকনিককে কেন্দ্র করে সবাই আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেন। এছাড়া শিশুরা আমেরিকার জাতীয় সঙ্গিত ও বাংলাদেশী জাতীয় সঙ্গিত পরিবেশন করে।


মোস্তাক আহমদ অনুষ্ঠানের ফুড ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন। তার ফুড ব্যবস্থাপনার জন্য মিলনমেলায় অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকেই খুশি ছিলেন।
শনিবার (০৪ ডিসেম্বর) ওয়াশিংটন ডিসি, ম্যারিল্যান্ড ও ভার্জিনিয়া শহরের সিলেটি কমিউনিটি ফ্যামেলিদের নিয়ে এই মিলনমেলা ও ভ্রমণে উপস্থিত ছিলেন সোয়েব খান, বিডিআইটি ডোমেইনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মোস্তাফিজুর চৌধুরী তানভীর, দিলাল আহমদ, শরীফ আহমদ, সৈয়দ মো: মোর্শেদ, শাহিদা সুমি, হেপি দেবনাথ, শিপার চৌধুরী, বিজন সিং, ইমন আহমদ, ফয়সল মাহমুদ, মো: কালাম, খালিদ আহমদ, ইকবাল হোসাইন, মামুন, রেজাউল লস্কর, রাশেদ চৌধুরী, জামাল আহমদ, খাইরুল আহমদ কোরেশী, সুমন আহমদ, আবু তারেক, মুরাদ, মোহাম্মেদ চৌধুরী, স্বপন, জসিম, কামরুল সোহাগ, নওশের রহমান।
আইটিপিএফইউএসের প্রতিষ্ঠাতা ও বিডিআইটি ডোমেইনের সিইও মোস্তাফিজুর চৌধুরী তানভীর বলেন, বিডিআইটি ডোমেইন থেকে স্বল্প খরচে কাজ শিখানো হয়। এখান থেকে কাজ শিখে অনেকেই ভালো অবস্থানে রয়েছেন। আর কোম্পানি থেকে কাজ শিখা কর্মীরা বিভিন্ন পেশায় জড়িত আছেন। এক্ষেত্রে কোম্পানিটি শতভাগ সফল বলে জানান মোস্তাফিজ চৌধুরী।
মোস্তাফিজুর চৌধুরী বলেন, এই কমিউনিটির সবাই নিজেকে একেকজন নেতা মনে করেন। এখানে আলাদা কোন নেতা নেই। সকলেই মিলেমিশে কাজ করে থাকেন। যার ফলে সবাই এক হয়ে কমিউনিটির জন্য কাজ করছেন।